মাহদীইজম সম্পর্কে ভুল ধারণাসমুহের অপনোদন

মাহদীইজম সম্পর্কে ভুল ধারণাসমুহের অপনোদন
اسلام على المهدى وعد الله تعالى الامم ان يجمع به الكلم و يلم به الشعث و يملا به الارض قسطا و عدلا كما ملئت ظلماً و جورا
প্রথমত: মাহদাভিয়াত সম্পর্কে ভুলধারনাগুলিকে জানা ও তার সঠিক উত্তর দেওয়া অর্থাৎ এই বিষয়ের উপর আলোচনা করা হচ্ছে ইমাম মাহ্‌দী (আ.)-এর প্রতি প্রতীক্ষার নৈতিক রুপ, যা এখানে আমাদের আলোচ্যের মুল বিষয়।
যদি মাহদীইজম নিজ ও সমাজ গঠনের একটি মুল স্তম্ভ হয়ে থাকে, যা আছে, তাহলে অবশ্যই তার ক্ষতিকারক দিকসমূহগুলিকে পর্যালোচনা করাও একটি আবশ্যিক ও জরুরী বিষয়।
অতএব যে সমস্ত সংস্থাগুলি এই বিষয়ের উপর পর্যালোচনা ও মাহদীইজম সম্পর্কে ভুল ধারণাগুলির সঠিক উত্তর দিয়ে থাকে সে সংস্থাগুলি প্রতিষ্ঠা হওয়া একান্ত প্রয়োজন।
দ্বিতীয়: মাহদীইজম সম্পর্কে ভুলধারনাগুলি নিয়ে পর্যালোচনা করতে প্রচুর সময়েরও প্রয়োজন রয়েছে।
যদি আমরা চাই কেন বিষয়ের সঠিক অর্থটিকে হস্তগত করতে, তাহলে অবশ্যই সর্বপ্রথম ঐ বিষয়ের সমস্ত দিকগুলিকে বিবেচনা করতে হবে, ভুলধারনাগুলিকে এবং যারা এ সমস্ত ধারনাগুলিকে সমাজে উপস্থাপন করেছে, বিভক্ত করতে হবে। অতপর পর্যালোচনা করতে হবে এবং অন্ততপক্ষে সংক্ষিপ্তাকারে অক্ষমুলক ভুলধারনাগুলির উত্তর দিতে হবে। সুতারং আমাদের আলোচ্য বিষয়টিকে এই প্রেক্ষাপটে ‘‘মাহদাভিয়াত সম্পর্কে ভুলধারনাগুলির পর্যালোচনা করার প্রয়োজনীয়তা’’ অনুবর্তন করব।
ভুল ধারণাগুলির ভাবার্থো ও বৈশিষ্ট:
প্রশ্ন ও ভুল ধারণার মধ্যে যে সম্পর্কটি বিদ্যমান তা হচ্ছে যে প্রত্যেক ভুল ধারনায় প্রশ্ন কিন্তু সব প্রশ্নকেই ভুল ধারনা বলা যায় না। ভুল ধারণা নিজেই একপ্রকার প্রশ্ন, এমনই প্রশ্ন যা কিছু বোঝার বা জানার জন্য উপস্থাপন করা হয়না।
কিছু জানার অথবা নিজ জ্ঞানকে বিস্তৃত করার জন্যে বা সঠিক রাস্তায় হেদায়াত পাওয়ার জন্যে এ সকল প্রশ্ন করা হয়না। ভুল ধারনাগুলির বিশিষ্ট কিছু বৈশিষ্ট আছে এবং সে বৈশিষ্টগুলি সম্পর্কে এ আলোচনার প্রথম অধ্যায়ে আমরা বক্তব্য রাখব, অবশ্য এ সমস্ত ভুল ধারণাগুলি মাহদীইজম বিষয়ের উপর ভিত্তি করে হবে।
ভুল ধারণাগুলি বিষয়বস্তু ভিত্তিক, কোনটি ধরন কোনটি পদ্ধতি আবার কোনটি প্রকৃতির উপর ভিত্তি করে উপস্থাপন হয়ে থাকে।
প্রথম বৈশিষ্ট হচ্ছে ভুল ধারণাগুলির বিষয়াদি আক্রমণাত্তক ও প্রত্যাখ্যানের সাথে হয়ে থাকে। যেমন প্রশ্ন করা হয় ইমাম মাহদী (আ.) কি সত্যিই জন্মগ্রহন করেছেন? হযরত মাহদি (আ.) যে জন্মগ্রহণ করেছেন, তার কি কোন সাক্ষ্য আছে? প্রশ্নকারীর এ সমস্ত প্রশ্ন করার উদ্দেশ্য হচ্ছে সম্পূর্ণ মাহদীইজম মূলনীতিকে প্রত্যাখান করা। আর এমতবস্থায় দলিল ও যুক্তি উপস্থাপণ করা সত্যেও প্রশ্নকারী সম্মত হয় না। কারন তার ইচ্ছা হচ্ছে ইমাম মাহদী (আ.) জন্মগ্রহণ করেছেন এই মূলভিত্তিকে ত্রুটিপুন্য করে দিতে চাই।

মন্তব্য

একটি মন্তব্য

* একটি তারকা চিহ্নিত ফিল্ড অবশ্যই মান থাকা আবশ্যক।